ব্রাজিলের পর্তুগিজ ভাষার কবি পলো লেমিনস্কি-র ‘কংক্রিট পোয়েট্রি’ ( ১৯৪৪ – ১৯৮৯ )। অনুবাদ : মলয় রায়চৌধুরী

images

তবু তাড়াতাড়ি

এমনকি তুমিও, কাঁচা বস্তু,

এমনকি তুমিও, থপথপাও, পরিমাণ আর পেশী,

ভোদকা, লিভার আর ঠোঁটচেপা হাসি,

মোমবাতির আলো, কাগজ, কয়লা আর মেঘ,

পাথর, অ্যভোক্যাডো শাঁস, বৃষ্টিপতন,

পেরেক, পাহাড়, গরম ইস্ত্রি,

এমনকি তুমিও মনকেমনে ভোগো,

অনেকটা পুড়ে গেছে,

বাড়ি ফিরে যাবার জন্য মনখারাপ ?

 

কাদা, স্পঞ্জ, শ্বেতপাথর, রবার,

সিমেন্ট, লোহা, কাচ, বাষ্প, কাপড় আর উপাস্হি,

তেলরঙ, ছাই, ডিমের খোসা, কণা আর বালি,

হেমন্তের প্রথম দিন, বসন্ত শব্দ,

পাঁচ নম্বর, মুখে এক থাপ্পড়, ভালো ছন্দ,

এক নতুন জীবন, মাঝবয়স, পুরোনো শক্তি,

এমনকি তুমিও, প্রিয় বস্তু,

মনে রেখেছ কখন আমরা কেবল বিশুদ্ধ এক ধারণা ছিলুম ?

প্রস্ত বনাম বিপত্তি

একটা ফ্ল্যাশব্যাক

একটা ফ্ল্যাশব্যাকের ভেতরে একটা ফ্ল্যাশব্যাক

একটা ফ্ল্যাশব্যাকের ভেতরে একটা ফ্ল্যাশব্যাক

তার ফ্ল্যাশব্যাক

একটা ফ্ল্যাশব্যাক

একটা ফ্ল্যাশব্যাক তৃতীয় ফ্ল্যাশব্যাকের ভেতরে

স্মৃতির মধ্যে স্মৃতি ঝরে পড়ে

মসৃণ জলের পাথরকুচি-ফুল

সবই ক্লান্তিকর ( ফ্ল্যাশব্যাক )

তা থেকে বাদ দেয়া হল অনুচিন্তার অনুচিন্তার অনুচিন্তা

তার অনিচিন্তা

 

খারিজের সাবধানবার্তা

এই পৃষ্ঠা, উদাহরণ হিসাবে,

পাঠ করা হবে বলে জন্মায় নি।

জন্মেছিল মলিন হবার জন্য,

ইলিয়াড-এর ফালতু নকল,

এমনকিছু যা স্তব্ধ করে,

পাতাকে যা শাখায় ফিরে যায়,

ঝরিয়ে ফেলার দীর্ঘকাল পরে।

 

এর জন্ম হয়েছিল সমুদ্রতীর হবার জন্য,

কে বলতে পারে হয়তো অ্যাণ্ড্রোমেডা, অতলান্তিক,

হিমালয়, বোধগম্য মাত্রা,

এর জন্ম হয়েছিল শেষতম হবার জন্য

এমন একজন যার জন্ম এখনও হয়নি ।

 

কিছুক্ষণ হল শব্দদের আনা হয়েছে

নীলনদের জলে ভাসিয়ে,

একদিন, এই পৃষ্ঠা, পাপিরাস,

একে অনুবাদ করতে হবে,

প্রতীকে, সংস্কৃততে,

ভারতের সমস্ত উপভাষায়,

বলতে হবে সুপ্রভাত

যা কেবল কেউ ফিসফিস করে বলে,

একে আচমকা পাথর হতে হবে

যেখানে কেউ কাচের গেলাস ফেলেছে।

জীবন কি তেমনই নয় ?

 

প্রতিবেদন অনুযায়ী

পৃথিবী শেষ হচ্ছে,

তুমি আরাম করতে পারো।

ওগুলো সব

ফিরে আসবে।

 

সবকিছু আবার গড়ে নাও

আমার কবিতার গঠন অনুযায়ী।

বাতাস, আমি বললুম কেমন করে ।

সূর্য, বাড়ি, রাস্তা,

রাজত্ব, ধ্বংস, বছরগুলো,

আমি বললুম আমরা কেমন ছিলুম।

 

ভালোবাসা, আমি বললুম কেমন করে

আর কেমন করেই বা আবার ?

 

একজন এমবার অ্যাথওয়ার্টকে লেখা একটা চিঠি

গদ্যের ভেতরে

আমার বৃষ্টিভরা মেঘ

মরুভূমি পেরিয়ে আমার কাছে

পাহাড়ি রাস্তা হয়ে

দুইয়ের মাঝের সমুদ্র

একটি মাত্রা একটি ফোঁপানি

একটি ইতি একটি নেতি একটি কান্না

আমাদের জানাবার জন্য নির্দেশিকা

যখন আমরা কেউ থাকবো না ।

কোনো কিছুই সূর্য

কখনও ব্যাখ্যা করতে পারবে না

 

চাঁদ আরও বেশি চিকন

তবু মামুলি

 

অমন ফুল ফ্যাকাশে

হবে না বৃষ্টিতে

 

সমস্তকিছু

.

আমি

.

পড়েছি

.

আমাকে

.

খোঁচায়

.

যখন

.

আমি

.

শুনি

.

রিটা

                             .

লি

 

আমাকে ধুয়ে ফ্যালো

আমাকে রোগা করো

আমাকে মিশিয়ে দাও

যতক্ষণ না

আমার পর

আমাদের পর

সমস্তকিছুর পর

কিছুই বাকি থাকবে না

মোহিত হওয়া ছাড়া

 

About anubadak

আমি একজন অনুবাদক । এতাবৎ রেঁবো, বদল্যার, ককতো, জারা, সঁদরা, দালি, গিন্সবার্গ, লোরকা, ম্যানদেলস্টাম, আখমাতোভা, মায়াকভস্কি, নেরুদা, ফেরলিংঘেট্টি প্রমুখ অনুবাদ করেছি ।
This entry was posted in Paulo Leminski and tagged . Bookmark the permalink.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s